দক্ষিণ দিনাজপুর জেলার সবথেকে পুরোনো টেরাকোটার পঞ্চরত্ন মন্দির

1
1325
দক্ষিণ দিনাজপুর জেলার সবথেকে পুরোনো টেরাকোটার পঞ্চরত্ন মন্দির

দক্ষিণ দিনাজপুর জেলার সবথেকে পুরোনো টেরাকোটার পঞ্চরত্ন মন্দির

দক্ষিণ দিনাজপুর জেলার সবথেকে পুরোনো টেরাকোটার পঞ্চরত্ন মন্দির

আঞ্চলিক প্রত্নক্ষেত্র

তুষারকান্তি দত্ত

দক্ষিণ দিনাজপুর জেলার পুরাতাত্ত্বিক নিদর্শন হিসেবে এটি এখন পর্যন্ত খুব সুন্দর একটি মন্দির। এটি পঞ্চরত্ন মন্দির নামে পরিচিত। গঙ্গারামপুর থানার মাহুর কিসমত গ্রামে এই মন্দিরটি অবস্থিত। আনুমানিক ষোল শো শতকের মাঝামাঝি কোন এক সময় মন্দিরটি নির্মান করা হয়। সম্পূর্ণ মন্দিরটিই টেরাকোটা নির্মিত।
যাইহোক , স্থানীয়দের সাথে কথা বলে এর ইতিহাস কিছুই জানতে পারলাম না। ইন্টারনেটেও সেভাবে কিছু পেলাম না। অগত্যা ব্যগ থেকে ফিতা বের করে নিজেই মাপজোক শুরু করে দিলাম।
উচ্চতার কিছু পরিমাপ eye estimation এর উপর করতে হয়েছে। তাই উচ্চতার পরিমাপে কিছু ত্রুটি থাকতেই পারে।
যা যা পেলাম
_____________
১) মোট ক্ষেত্রফল ১৬৫ বর্গফুট (প্রায়)
২) প্রবেশ পথ ২৬ ইঞ্চি চওড়া
৩) প্রবেশ পথের উচ্চতা ৫৬ ইঞ্চি
৪) মন্দিরের উপরের অংশটি খিলানের ন্যায়।
৫) খিলানের সর্বোচ্চ উচ্চতা ১৪ ফিট, সর্বনিম্ন ১২ ফিট( আনুমানিক)
৬) মূল প্রবেশ পথের দুদিকে টেরাকোটার মাপ সমান হলেও, প্রতিটি টেরাকোটায় আলাদা আলাদা নক্সা রয়েছে।
৭) টেরাকোটাগুলির আনুমানিক মাপ ১০/১১, ১০/১৫ইঞ্চি। এছাড়া কিছু ৪ ইঞ্চির লম্বা পাড়ের নক্সা করা টেরাকোটাও দেখা যায়।
৮) তিনদিকের দেওয়ালে নক্সা করা টেরাকোটা থাকলেও, একদিকের দেওয়াল প্লাস্টার করা ও নক্সা বিহীন।
৯) টালি নির্মিত চূড়াগুলির উচ্চতা আনুমানিক ৬ ফিট।
১০) মন্দিরের দেওয়াল সামনে ৩৬ইঞ্চি, পেছনে ও পাশে ৩০ইঞ্চি চওড়া।
মাপজোক করতে করতে মধ্যাহ্ন পেড়িয়ে গেছে অনেকক্ষণ,তাই বাড়ি ফেরার পথ ধরতে হল। পঞ্চরত্ন মন্দিরকে আবার আসার প্রতিশ্রুতি দিয়ে ফিরতে শুরু করলাম।

বালুরঘাট , দক্ষিনদিনাজপুর

1 COMMENT

  1. thanks Sanjay for this rate piece of information.

    Actually Dakshin and Uttar Dinajpur is most neglected district of West Bengal.

    Is it possible to contact you via phone?

    Thanks.

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here