বিনোদনের নামে বাংলা সিরিয়াল খোকাবাবুর নারী সাজ রূপান্তরকামী নারীদের অপমান! উঠছে অভিযোগ।

0
1337
খোকাবাবু ওরফে কান্তাবাঈএর স্থিরচিত্র। সৌজন্যে ইন্টারনেট

বিনোদনের নামে বাংলা সিরিয়াল খোকাবাবুর নারী সাজ রূপান্তরকামী নারীদের অপমান! উঠছে অভিযোগ।

খোকাবাবু ওরফে কান্তাবাঈএর স্থিরচিত্র। সৌজন্যে ইন্টারনেট

অবকাশে সঞ্জয় 

স্টার জলসা চ্যানেলে প্রতিদিন রাত্রি সাড়ে দশটা থেকে প্রচারিত হয় বাংলা সিরিয়াল ‘খোকাবাবু’। সিরিয়ালের শুরুতে ঘটা করে একটি ঘোষণা লিখে জানানো হয়, এই অনুষ্ঠান শুধুমাত্র বিনোদনের জন্য। কোন সম্প্রদায়কে কোনরূপ আঘাত করা হয় না। ইত্যাদি। কিন্তু সেই বিনোদন দিতে গিয়ে সিরিয়ালের নায়ক খোকাবাবুকে নারী সাজিয়ে কান্তাবাঈ নামক যে চরিত্রে অভিনয় করানো হচ্ছে তা রূপান্তরকামী নারীদের অপমান করছে। এমনই অভিযোগ জানালো  বেশকিছু রূপান্তরকামী নারী।

শরীরে পুরুষ মনে নারী এই ধরনের মানুষরাই রূপান্তরকামী নারী। উল্লিখিত চরিত্র খোকাবাবু কোনভাবেই শরীরে পুরুষ মনে নারী নন। ধারাবাহিকের চরিত্রে এখনো পর্যন্ত তেমন কোন ইঙ্গিত নেই। তারপরেও তাঁকে নারী সাজে সাজানো এবং তাঁর মুখের সংলাপ ইত্যাদি ক্যারিকেচার রূপান্তরকামী নারীসমাজকে ব্যঙ্গ করছে। এমনটাই বলছেন অনেকে। তাহলে  বিনোদনের নামে কারও অনুভুতিকে আঘাত করার অধিকার শিল্পীসমাজের আছে কি?

তবে দিনের পর দিন প্রচারিত হওয়া সত্ত্বেও এই নিয়ে কোন প্রতিবাদ রাজ্যের কোন রূপান্তরকামী নারী সংগঠন করেন নি। আর তাই বহাল তবিয়তে এই ক্যারিকেচার চলছে।

এই সিরিয়াল আমার পাড়ায়  আমার সম্পর্কে গড়ে ওঠা ধারনাকে বদলে দিচ্ছে। পাড়ার ছেলেরা এমনিতেই আগে আমায় দেখলে ঠাট্টা করত। এখন তারা আমার নাম দিয়েছে ‘কান্তাবাঈ’।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক রূপান্তরকামী নারী এ প্রসঙ্গে বলেন, আমি আমাদের একটি হোয়াটসাপ গ্রুপে এই নিয়ে লিখেছিলাম। অনুরোধ করেছিলাম আমাদের নেত্রীদের প্রতিবাদ করার জন্য। কিন্তু কেউ কর্নপাত করে নি।

অন্য একজন বলেন, এই সিরিয়াল আমার পাড়ায়  আমার সম্পর্কে গড়ে ওঠা ধারনাকে বদলে দিচ্ছে। পাড়ার ছেলেরা এমনিতেই আগে আমায় দেখলে ঠাট্টা করত। এখন তারা আমার নাম দিয়েছে ‘কান্তাবাঈ’।

এতকিছুর পরেও কোথাও প্রতিবাদ না হওয়ায় রমরমিয়ে চলছে এমন ব্যঙ্গ যার পোশাকী নাম বিনোদন।

 

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here