ছাত্রীর দুর্দান্ত রেজাল্ট করিয়ে এলাকায় সাড়া ফেলে দিয়েছেন রূপান্তরকামী গৃহশিক্ষিকা সুমনা প্রামানিক

0
3653
বাঁদিকে ছাত্রছাত্রীদের মধ্যে, মাঝে কৃতি ছাত্রী দিশা এবং ডানদিকে সুমনা।

ছাত্রীর দুর্দান্ত রেজাল্ট করিয়ে এলাকায় সাড়া ফেলে দিয়েছেন রূপান্তরকামী গৃহশিক্ষিকা সুমনা প্রামানিক  

বাঁদিকে ছাত্রছাত্রীদের মধ্যে, মাঝে কৃতি ছাত্রী দিশা এবং ডানদিকে সুমনা।

নিজস্ব প্রতিবেদনঃ মাধ্যমিক তারপরেই উচ্চমাধ্যমিক। একই সপ্তাহে রাজ্যের দু দুটো বড় পরীক্ষার ফল প্রকাশিত হয়েছে। আর তাই মিডিয়ে জুড়ে নানা ধরনের ছাত্র ছাত্রীদের সাফল্যগাথা দেখা যাচ্ছে। তেমনি এক সাফল্যের সংবাদ নিয়ে এই প্রতিবেদন। তবে এ সাফল্য কেবল ছাত্রীর দুর্দান্ত রেজাল্টে আটকে নেই। ছাত্রীর সেই সাফল্যে বেশি করে সাড়া পড়েছে তাঁর গৃহশিক্ষিকার জন্য। কারণটা সেই ছাত্রীর গৃহশিক্ষিকা হিসাবে যিনি ছিলেন, তিনি অন্য আর পাঁচজনের মতো সাধারন নন। তিনি একজন রূপান্তরকামী গৃহশিক্ষিকা। আমাদের সমাজ এখনও যে রূপান্তরকামীদের স্বাভাবিকভাবে গ্রহণ করতে পারে নি, সেখানে দাঁড়িয়ে রূপান্তরকামী গৃহশিক্ষিকা হিসাবে নিযুক্তিকরণই যথেষ্ট ব্যতিক্রমী। তবে ছাত্রীর অভিভাবকরা সেই ব্যতিক্রমী পদক্ষেপ নিয়েছেন আর সেই পদক্ষেপ যে কতখানি সঠিক ছিল তার প্রমাণ মিলেছে ছাত্রীটির দুর্দান্ত রেজাল্টে। কৃষ্ণনগর লেডি কারমাইকেল গার্লস স্কুলের ছাত্রী দিশা হালদার এবারের মাধ্যমিকে ৫৮১ নম্বর পেয়েছেন। এবং তাঁর রূপান্তরকামী গৃহশিক্ষিকা সুমনা প্রামানিক যে দুটি বিষয় পড়াতেন সেই গনিত ও জীবন বিজ্ঞানে দিশা পেয়েছেন ৯০ করে।

প্রসঙ্গত উল্লেখ সুমনা প্রামাণিক নিজেও রূপান্তরকামী ছাত্রী হিসাবে যথেষ্ট মেধাবী। তিনিই রাজ্যের প্রথম রূপান্তরকামী ছাত্রী যিনি গনিত নিয়ে মাস্টার্স করছেন কল্যানী বিশ্ববিদ্যালয় থেকে। 

 

প্রসঙ্গত উল্লেখ সুমনা প্রামাণিক নিজেও রূপান্তরকামী ছাত্রী হিসাবে যথেষ্ট মেধাবী। তিনিই রাজ্যের প্রথম রূপান্তরকামী ছাত্রী যিনি গনিত নিয়ে মাস্টার্স করছেন কল্যানী বিশ্ববিদ্যালয় থেকে। যাইহোক গৃহশিক্ষিকা হিসাবে সুমনা প্রামানিক ছাত্রীর এই সাফল্যে অত্যন্ত আনন্দিত। আসলে অন্য সব যোগ্যতা থাকা স্বত্ত্বেও নিজস্ব যৌন পরিচয় বা লিঙ্গ পরিচয়ের কারণে যেভাবে সবকিছু থেকে সুমনাদের বঞ্চিত হতে হয় সেখানে দাঁড়িয়ে তাঁর এই সাফল্য রীতিমতো কুর্নিশযোগ্য।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here