সব প্রেম শেষে মেলে যেথা এসে সেখানেই শুরু হয় গর্বের পদযাত্রা

0
644
Click By Abakaashe Sanjoy

 সব প্রেম শেষে মেলে যেথা এসে সেখানেই শুরু হয় গর্বের পদযাত্রা 

Click By Abakaashe Sanjoy

অবকাশে সঞ্জয়ঃ ছেলেই ছেলেই প্রেম হয়েছে/ বেশ হয়েছে, বেশ হয়েছে। মেয়েই মেয়েই প্রেম হয়েছে/ বেশ হয়েছে, বেশ হয়েছে। ট্রান্সে ট্রান্সে প্রেম হয়েছে/ বেশ হয়েছে, বেশ হয়েছে। হিজড়াই  হিজড়াই প্রেম হয়েছে/ বেশ হয়েছে, বেশ হয়েছে। কিন্তু এইসব প্রেম এ সমাজ, এ রাষ্ট্র মেনে নেয় না। মেনে নিতে চায় না। উল্টে যারা এমন প্রেমে আবদ্ধ হতে চায় তাদের উপর নেমে আসে আইনের খড়গ। এমন প্রেমীযুগলের ঠাঁই হয় সমাজের প্রান্তে। শুধু তাই নয়, এমন প্রেমের অপরাধে এদের জীবনে নেমে আসে ঘন কালো মেঘ। মানুষ হিসাবে বাঁচার অন্য সব অধিকার থেকে বঞ্চিত হতে হয় এদের। কী কর্মক্ষেত্র, কী রাস্তাঘাট সর্বত্র তখন এদের যোগ্যতাকে ছাপিয়ে যায় এদের প্রেমময় যৌনতা।

Click By Abakaashe Sanjoy

এভাবেই চলেছে বছরের পর বছর। যুগের পর যুগ। কিন্তু কতকাল? এমন প্রেমের অপরাধে সামাজিক কারাগারে এরা বন্দী থাকবে? থাকতে পারে? কারাগারের শৃঙ্খল ভেঙে বের হওয়ার জন্য  সকলেই ছটফট করছিলেন। শুধু প্রয়োজন ছিল একটা জায়গা। যেখানে সামাজিক কারাগার ভেঙে এসে একটু মুক্তির শ্বাস নেবে এরা। আর সেই জায়গাটাই হয়ে দাঁড়ালো প্রাইড ওয়াকের মঞ্চ। কলকাতা সহ যখনই যেখানে যখনই প্রাইড ওয়াক অনুষ্ঠিত হয়েছে, কাতারে কাতারে  সমপ্রেমী, রূপান্তরপ্রেমী, হিজড়াপ্রেমী এসে ভিড় জমিয়েছেন। উচ্চৈস্বরে গলা তুলে বলেছেন, আমার শরীর আমার মন/ দূর হটো রাজশাসন।

Click By Abakaashe Sanjoy 

আমিতি ট্রাস্ট আয়োজিত ষষ্ঠবর্ষের সেই গর্বিত পদযাত্রা তথা প্রাইডে ওয়াকেও তার ব্যতিক্রম হয় নি। হুগলীর চন্দননগর থানার সামনে রানীঘাট থেকে শুরু হওয়া সেই গর্বিত পদযাত্রায় সবাই সুরে সুর মিলিয়ে বলে উঠছিলেন, আমরা গর্বিত সমকামী। আমরা গর্বিত রূপান্তরকামী। আর গঙ্গার হাওয়া খেতে আসা সারি সারি চেয়ারে বসা মানুষজন সহ অসংখ্য পথচারীদের হাতে তুলে দেওয়ার জন্য ওয়ানপেজারে ছাপানো নিজেদের কথা সমৃদ্ধ হ্যান্ডবিল বিলোতে বিলোতে এগিয়ে গিয়েছে সেই পদযাত্রা। এগিয়েই গিয়েছে। একটাই লক্ষ্য নিয়ে, আর পিছোনো নয়। এবার জয় করতেই হবে। ছিনিয়ে নিতেই হবে। আর যে প্রত্যয়ে পায়ে পা মিলিয়ে এগিয়ে যাচ্ছিলেন ট্রান্সজেন্ডার অ্যাক্টিভিস্ট রঞ্জিতা সিনহা, অভিনয়শিল্পী তিস্তা দাস, বাচিকশিল্পী অনুরাগ মৈত্রেয়ী, ট্রান্সমডেল সোহিনী সরকার, সমাজকর্মী মধুজা নন্দী সহ কয়েক শো সমস্ত রকম প্রেমের সমর্থনকারীরা তাতে জয় আসা যে সময়ের অপেক্ষা তা বলাই বাহুল্য। যেদিন তা আসবে, সেদিন অবশ্য হবে সত্যিকারের গর্বের পদযাত্রা। তবে তার আগে, এ সাফল্যও কম নয়। কেননা এ এমন এক জায়গা যেখানে সব প্রেম এসে মিলে গেল শেষে…।

 

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here