রূপান্তরকামীদের নৃত্যমঞ্চে চাঁদের হাট বসালেন মেঘ সায়ন্তন ঘোষ ও রুদ্রপলাশ

0
582
ছবি সৌজন্যে-মেঘ সায়ন্তন ঘোষ

রূপান্তরকামীদের নৃত্যমঞ্চে চাঁদের হাট বসালেন মেঘ সায়ন্তন ঘোষ ও রুদ্রপলাশ

ছবি সৌজন্যে-মেঘ সায়ন্তন ঘোষ

নিজস্ব প্রতিবেদনঃ কথা ছিল চিত্রাঙ্গদার নৃত্যায়ন করবেন একঝাঁক রূপান্তরকামী নারী আইসিসিয়ার এর মঞ্চে। শহরের বুকে যা প্রথম। হলও তাই। রবীন্দ্রনাথের চিত্রাঙ্গদা এক অন্যরূপ পেল। নারী হয়েও পুরুষ বেশে বড় হওয়া চিত্রাঙ্গদা প্রাণপুরুষের দর্শন পাওয়া মাত্রই পুরুষের বেশ ত্যাগ করে নারী হতে চেয়েছেন। এ ইচ্ছা অন্তরের ইচ্ছা। আর কে না জানে অন্তরের ইচ্ছের চেয়ে বড় কিছু হয় না।

নৃত্যগুরু সঞ্চিতা ভট্টাচার্য্য ও মেঘ সায়ন্তন ঘোষ

রূপান্তরকামী নারীরাও তেমনি। তাই রবীন্দ্র চিত্রাঙ্গদা আর বাস্তবের চিত্রাঙ্গদারা যেন একাকার হয়ে গেলেন মঞ্চে। এমন সর্বাঙ্গসুন্দর উপস্থাপন যার জন্য সম্ভব হল তিনি মেঘ সায়ন্তন ঘোষ ও তাঁর নৃত্যগোষ্ঠী রুদ্রপলাশ। এবং এই কাজে তাঁর মাথার উপর যিনি ছিলেন তিনি হলেন নৃত্যগুরু সঞ্চিতা ভট্টাচার্য্য।

এমন সর্বাঙ্গসুন্দর উপস্থাপন যার জন্য সম্ভব হল তিনি মেঘ সায়ন্তন ঘোষ ও তাঁর নৃত্যগোষ্ঠী রুদ্রপলাশ। এবং এই কাজে তাঁর মাথার উপর যিনি ছিলেন তিনি হলেন নৃত্যগুরু সঞ্চিতা ভট্টাচার্য্য।

 

ডঃ শশী পাঁজার সঙ্গে মেঘ সায়ন্তন ঘোষ

যাইহোক নৃত্যনাট্যের পাশাপাশি ঋতু উৎসবের আরও একটি আকর্ষণ ছিল মঞ্চে সমাজের নানা কৃতি মানুষের উপস্থিতি। রুদ্রপলাশ তাদের আরাধ্য ঋতুপর্ণ ঘোষ কে স্মরণ করে বিগত চার বছর ধরে ঋতু উৎসব পালন করছে। আর এ বছর সেই উৎসবে ঋতুপর্ণ ঘোষ নামাঙ্কিত স্মারক প্রদানের মাধ্যমে সম্মাননা জ্ঞাপন করলেন সেই সব কৃতি মানুষদের।

আর এ বছর সেই উৎসবে ঋতুপর্ণ ঘোষ নামাঙ্কিত স্মারক প্রদানের মাধ্যমে সম্মাননা জ্ঞাপন করলেন সেই সব কৃতি মানুষদের।

নৃত্যনাট্টের একটি দৃশ্যে মেঘ সায়ন্তন ঘোষ ও তমোনাশ মন্ডল

সেই কৃতি মানুষদের মধ্যে ছিলেন যেমন রাজনৈতিক ব্যক্তিত্ব শোভন চট্টোপাধ্যায়, ডঃ শশী পাঁজা, নৃত্যশিল্পী অলকানন্দা রায়, সঞ্চিতা ভট্টাচার্য্য, তেমনই ছিলেন সমাজকর্মী তথা ট্রান্সজেন্ডার অ্যাক্টিভিস্ট রঞ্জিতা সিনহা, গৌতম দে প্রমুখ। এককথায় বলা যেতে পারে মঞ্চে চাঁদের হাট বসেছিল। রূপান্তরকামীদের অনুষ্ঠান মানেই শুধু রূপান্তরকামীদের উপস্থিতি। সেই ধারনাকে নস্যাৎ করে অন্য কৃতি মানুষদের উপস্থিতি অনুষ্ঠানকে মূল স্রোতের সঙ্গে মিশিয়ে দিয়েছে যা মেঘ সায়ন্তন ঘোষ ও রুদ্রপলাশের সবথেকে বড় সার্থকতা।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here