সমাজের তৃতীয় নয়নী রূপান্তরকামী হেনাদের আঙিনায় অবকাশে-র ‘আমিও দুর্গা আমার দুর্গা’

0
284
বাঁদিকে পত্রিকা প্রকাশ মুহুর্ত। ডানদিকে অনুষ্ঠান সমাপ্তি মুহুর্ত

সমাজের তৃতীয় নয়নী রূপান্তরকামী হেনাদের আঙিনায় অবকাশে-র ‘আমিও দুর্গা আমার দুর্গা’

বাঁদিকে পত্রিকা প্রকাশ মুহুর্ত। ডানদিকে অনুষ্ঠান সমাপ্তি মুহুর্ত 

বিশেষ প্রতিবেদনঃ তৃতীয় নয়না মা দুর্গা-র কাছে এতদিন একপ্রকার ব্রাত্যই ছিল সমাজের তৃতীয় নয়নী রূপান্তরকামীরা। স্বয়ং শ্রীরামচন্দ্র যাদের আশীর্বাদ করে বলেছিলেন, সমাজ সকল শুভ উৎসবে তোমাদের স্মরণ করিবে। তোমাদের উপস্থিতি বিনা উৎসব শুভ হবে না। কিন্তু সমাজ তাদের উপেক্ষা করেই শুভ উৎসবে মেতেছে। নাগরিক সভ্যতায় তৃতীয় নয়নীরা ঠাঁই পাচ্ছিল না এতদিন।                                তবে পরিবর্তনই সমাজের নিয়ম। নতুন শতাব্দীর দ্বিতীয় দশক থেকেই সেই বহু কাঙ্খিত পরিবর্তন আসতে শুরু করে। যার সবথেকে বড় দৃষ্টান্ত এবছরের দুর্গোৎসব। রূপান্তরকামী নারীদের মধ্যে নৃত্যশিল্পী তথা আইনজীবী মেঘ সায়ন্তন ঘোষ যেমন এবার একটি পুজোয় ব্র্যান্ড অ্যামবাসাডার, তেমনি ট্রান্সজেন্ডার অ্যাক্টিভিস্ট রঞ্জিতা সিনহা তাঁর এটিএইচবি পরিবার নিয়ে আয়োজন করছেন দুর্গাপুজার।

অবকাশের বিভিন্ন সংখ্যার প্রদর্শনী

এর পাশাপাশি কোথাও সিঁদুর খেলা, কোথাও ফ্যাশন শো ইত্যাদির মাধ্যমে রূপান্তরকামী নারীরা সরাসরি অংশগ্রহণ করার সুযোগ পাচ্ছেন এবারের দুর্গোৎসবে।

এ হেন সন্ধিক্ষণে দাঁড়িয়ে অবকাশে পত্রিকা তাদের শারদ অর্ঘ্য সাজিয়েছেন ২৬ জন কবি সাহিত্যিক ও শিল্পীর লিখনে, চিত্রনে ‘আমিও দুর্গা আমার দুর্গা।’ যেখানে দুর্গা মডেল হিসাবে অন্তঃপ্রচ্ছদচিত্রে আছেন এক রূপান্তরকামী নারী হেনা ঘোষ।                                                                                                                                             

শুধু তাই নয়। রূপান্তরকামী নারীর লড়াই যে দেবী দুর্গা-রই লড়াইয়ের মতো, বরং তার থেকে একটু বেশিই, আরা তা  নিয়ে কলম ধরেছেন আর এক রূপান্তরকামী নারী তথা সাহিত্যিক রানি মজুমদার।

অবশ্য অবকাশের শারদ সংখ্যার ‘আমিও দুর্গা আমার দুর্গা’ কেবল রূপান্তরকামী নারীদের লড়াইগাথা নয়, সমাজের অন্য প্রান্তিক মানুষদের লড়াইয়ের কথাও আছে। দুর্ঘটনায় পা হারানোর পরেও  কবিতা দাসের বিশেষ চাহিদা সম্পন্ন বাচ্চাদের জন্য স্কুল তৈরির লড়াইগাথা, স্টেশনে অনাথ শিশুদের পড়ানো আর এক  নারীর কথা, একাকী নির্জন পথের সুযোগ নিয়ে ধর্ষণ করতে আসা ধর্ষকাসুরকে বধ করার কথা ইত্যাদি।

বাঁদিক থেকে অবকাশে সঞ্জয়, জুঁই রায়, মনীষা ব্যানার্জী, মধু ঘোষ ও দেব বডুয়া 

এ হেন লড়াইগাথা নিয়ে গ্রন্থিত ‘আমিও দুর্গা আমার দুর্গা’ প্রকাশ পেল গতকাল। এক আন্তরিক আনন্দআড্ডার মধ্য দিয়ে। উত্তর চব্বিশ পরগণার তালবান্দায় রূপান্তরকামী নারী হেনা ঘোষের আয়োজনে উক্ত অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়।

পুষ্পবৃক্ষরোপন ও কাশফুল সহযোগে দেবীঘট সাজানোর  মধ্য দিয়ে অনুষ্ঠানের শুভ সূচনা হয়। সূচনা করেন সমাজকর্মী কবিতা দাস, শিপ্রা ঘোষ,  কবি সুজাতা দাস এবং  মন বন্দ্যোপাধ্যায়। পত্রিকা প্রকাশ উপলক্ষ্যে এই অনুষ্ঠানে  উপস্থিত ছিলেন বঙ্গো শিরোমনি পুরস্কারে পুরস্কৃত কবি সিদ্ধার্থ সিংহ, কবি মানস চক্রবর্তী, পৌলমী দাস, অমৃতা চট্টোপাধ্যায়, স্বর্ণকমল তপস্বী প্রমুখ। কবিতা পাঠের পাশাপাশি সংগীত নৃত্যানুষ্ঠানও হয়। সংগীত পরিবেশন করেন মন বন্দ্যোপাধ্যায়, সুজাতা দাস, মনীষা ব্যানার্জী প্রমুখ। নৃত্য পরিবেশনে ছিলেন সৌমী ঘোষ,  মধু ঘোষ, জুঁই রায় ও শুভ। সমগ্র অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন ফ্যাশনশিল্পী দেব বড়ুয়া ও কবি সুস্মিতা ঘোষ। অনুষ্ঠানের সকল অথিতিকে পুষ্পবৃক্ষ দিয়ে বরণ করেন অবকাশে পত্রিকার সম্পাদক অবকাশে সঞ্জয় এবং অনুষ্ঠানের আয়োজকদের অন্যতম হেনা ঘোষ। ( ছবিগুলি তুলেছেন কবি মানস চক্রবর্তী )

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here