Colors HD ইন্ডিয়া গট ট্যালেন্টের ফাইনালে সোনাগাছির যৌনকর্মীদের সন্তান ও তৃতীয়লিঙ্গের নৃত্যশিল্পীরা

0
162
ছবি সৌজন্যে রাজকুমার দাস

Colors HD ইন্ডিয়া গট ট্যালেন্টের ফাইনালে সোনাগাছির যৌনকর্মীদের সন্তান ও তৃতীয়লিঙ্গের নৃত্যশিল্পীরা

ছবি সৌজন্যে রাজকুমার দাস 

বিশেষ প্রতিবেদন, সোনাগাছি, ২৩.১২.১৮ঃ এ যেন সত্যিই পাঁকে পদ্ম ফুটেছে। এশিয়ার বৃহত্তম রেডলাইট এরিয়া তথা পশ্চিমবঙ্গের কলকাতার সোনাগাছির যৌনকর্মীদের সন্তানদের কী অসম্ভব ভালো প্রতিভা, তার নিদর্শন Colors HD ইন্ডিয়া গট ট্যালেন্টের নৃত্যপ্রতিযোগিতায় পাওয়া যাচ্ছে। সঙ্গে সোনায় সোহাগা তৃতীয় লিঙ্গের নৃত্যশিল্পী। নিজস্ব প্রতিভার জোরে আজ তারা ফাইনালে পৌঁছে গিয়েছে। সামনে আর একটা ধাপ। তারপরেই গ্র্যান্ড  ফিনাল।

আজ রাতেই  টেলিকাস্ট হবে ফাইনাল শো। তারপরেই শুরু হবে ভোটিং। ভোটিং-এর জোরে তারা পৌঁছে যেতে পারে গ্র্যান্ড ফিনাল-এ।  তবে এসব নিয়মের বাইরে একটা কথা স্পষ্ট সারা ভারতব্যাপী এই ট্যালেন্ট সার্চে তারা যে এবারের শ্রেষ্ঠ ট্যালেন্ট তা মুক্তকন্ঠে বারংবার বলেছেন সম্মানীয় বিচারক হিসাবে অনুষ্ঠানে উপস্থিত করণ জোহর, কিরণ খের, মালাইকা অরোরার মতো বিশিষ্ট ব্যক্তিত্বরা।

সেমিফাইনালের একটি দৃশ্য

প্রতিযোগিতা চলাকালীন উঠে এসেছে নৃত্যশিল্পীদের জীবনযন্ত্রণা, দৈনন্দিন লড়াইয়ের কথা। তাদের মাতৃক পরিচয় তাদের লড়াইকে কতটা কঠিন করে দিয়েছে তা পরোক্ষদর্শীদের পক্ষে অনুভব করা কঠিন। তবে পথ যতই কঠিন হোক, থেমে যায় নি তারা। আর তাই আজ ইন্ডিয়া গট ট্যালেন্টের ফাইনালে পৌঁছতে পেরেছেন।

সোনাগাছির যৌনকর্মীদের সন্তানদের  নৃত্যগোষ্ঠী ‘কোমলগান্ধার’ যার কোরিওগ্রাফার অভিজিৎ ঘোষ, যিনি  নিজেও এক যৌনকর্মীর সন্তান, তিনি বলেন, আমাদের নৃত্যগোষ্ঠীর শিল্পীরা ছোট থেকে কেউই সুপ্রশিক্ষণ পায় নি। তা স্বত্তেও প্রতিভা থাকলে যে সব কিছু করা যায়, তার সবচেয়ে বড় দৃষ্টান্ত এই প্রতিযোগিতায় আমাদের অংশগ্রহণ ও ফাইনালে পৌঁছানো।

ফাইনালের আগে ড্রেসিংরুমে

যৌনকর্মীদের সন্তানদের পাশাপাশি প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণকারী আর এক নৃত্যশিল্পী তৃতীয়লিঙ্গের রাজকুমার দাস, যিনি লোক আদালত সাম্মানিক বিচারক হিসাবে প্রথম ভারতীয়, সেই তিনি বলেন, এই মঞ্চ আমাদের কাছে এমন এক বিরল সম্মান যা পেয়ে আমরা ধন্য। এখানে আসার আগে আমাদের অনেকি বারণ করেছিল, মাতৃ পরিচয় গোপন রাখতে। কিন্তু আমরা তা করিনি। কারণ আমরা যা হয়েছি, হতে পেরেছি, তা ঐ মায়েদের জন্য। তাই ইন্ডিয়া গট ট্যালেন্টে দেশকে স্যালুট জানানোর পাশাপাশি আমরা আমাদের মায়েদেরও প্রণাম জানিয়েছি। সমাজের কিছু অংশের ঘৃণা আমাদের প্রতি থাকলেও অনেকেই যে পাশে দাঁড়ান। আর তাই মুক্তকন্ঠে সব বলতে পেরেছি।

সোনাগাছির কোমলগান্ধারের পারফরমেন্স দেখে মুগ্ধ বিচারকদের গলাতেই শোনা গিয়েছে সেই একই কথা। কিরণ খের, করণ জোহর এর মতো বিখ্যাত চলচ্চিত্রশিল্পীরা সেই মুগ্ধতা গোপন করে নি। নৃত্যশেষে নিজস্ব মতামত দিতে গিয়ে বারংবার তা বলেছেন।

এখন দেখার ফাইনালে পৌঁছনোর পর, সমাজের  ভোট পায় কিনা সোনাগাছির এই অসম্ভব সুন্দর নৃত্যশিল্পীরা যে ভোট তাদের স্থান করে দেবে গ্র্যান্ড ফিনালে।

প্রতিবেদন টি লিখেছেন ড্রিমনিউজের সম্পাদক অবকাশে সঞ্জয়।

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here