সহস্র বছর পরেও…// অনন্যা চক্রবর্তী

0
90

সহস্র বছর পরেও…

অনন্যা চক্রবর্তী

“বনমালী তুমি পর জনমে হইও রাধা…”

পর জন্ম যদি সত্যি হয় হে প্রাণ প্রিয় সখা…………

তুমি একবার আমি হও।

আকাশ বুকে আপন মনে তোমার নীলাম্বরী উড়িয়ে আঁচল পাগল কোরো আমায়।

সহস্র বছর প্রেমাপেক্ষায় থাকা বটবৃক্ষের উপচে পড়া শাখাপ্রশাখার মতো আষ্টেপৃষ্ঠে জাপটে ধরবো তোমায় !

তোমার গভীর চোখের ছায়াঘন কাজলে

ডুব দিয়ে, একই ছাত ভাগ করে নেব।

কাজলা দিঘির চরে, শাল পিয়ালের বনে, চঞ্চলা হরিণীর মতো ছুটবে তুমি,

উজান ভাটার টানে আমি গজল 

ধরে মুগ্ধ নয়নে চেয়ে থাকব।

না গো না…..তুমি যে ব্যথা আমায় দিয়েছ,

সে ব্যথা তোমায় ফিরিয়ে দেব না আমি।

আমাদের স্বপ্নরাগের ভোর গুলো……

সব সত্যি হবে তুমি দেখো।

পাহাড় চূড়া থেকে স্বপ্ন পেড়ে এনে…..

ব্যঙ্গমা ব্যঙ্গমির ঘুমপাড়ানি গান,

আর জ্যোৎস্না রাতের আদর মাখা সোহাগ,

সব হারানোর ভয় কে জয় করে, 

বুকের মধ্যে টেনে নেব তোমার আদর মুখ।

ক্ষত বিক্ষত দুটো শেষের হৃদয় বোষ্টম বোষ্টমীর নবীন প্রেমে হবে মাতোয়ারা।

চাতকের মত খুঁজব না…….

পানকৌড়ি যেমন টুপ করে ডুব দেয় নির্জন নদীর বুকে………

তেমনি করেই আমার বুকে 

তোমার আলতো পরশ।

পর জন্মে তুমি শুধুই আমার…..

কথা দাও….আর হারাবে না !!

এ জন্মের অপূর্ণ সাধ…….

না পাওয়ার বিষাক্ত দংশন গুলো,

মিটিয়ে নেব সাধের পর জন্মে…….

সহস্র বছর পরেও………আমি রক্তাক্ত হৃদয় হাতে…….অপেক্ষায় দাঁড়িয়ে……….

“আমার বোষ্টমীর”।।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here